দীর্ঘ ০৪ বছর পর সরকারি তিতুমীর কলেজ শাখা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। রবিবার (১২ জুন) বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ভ্যারিফায়েড ফেসবুক পেজে ১৩ পৃষ্ঠার একটি তালিকা প্রকাশ করা হয়। এতে বিভিন্ন পদে স্থান পাওয়া ৩২২ জনের নাম-পদবি রয়েছে।

ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

১৩ পৃষ্ঠার প্রাপ্ত তালিকা অনুযায়ী, কমিটির সভাপতি মো. রিপন মিয়া, সহ-সভাপতি ৮৫ জন, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হক জুয়েল মোড়ল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ১১ জন, সাংগঠনিক সম্পাদক ১১ জন, প্রচার সম্পাদক একজন, উপ-প্রচার সম্পাদক পাঁচজন, দপ্তর সম্পাদক একজন, উপদপ্তর সম্পাদক পাঁচজন, গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক একজন, উপ গ্রন্থনা সম্পাদক পাঁচজন, শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম বিষয়ক সম্পাদক একজন, উপ শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম বিষয়ক সম্পাদক চারজন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক একজন, উপ সাংস্কৃতিক সম্পাদক চারজন, অর্থ সম্পাদক একজন, উপ অর্থ সম্পাদক চারজন, আইন বিষয়ক সম্পাদক একজন, উপ আইন বিষয়ক সম্পাদক পাঁচজন, পরিবেশ সম্পাদক একজন, উপ পরিবেশ সম্পাদক তিনজন, স্কুল ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক একজন, উপ স্কুল ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক তিনজন, বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক একজন, উপ বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি সম্পাদক চারজন, সমাজসেবা সম্পাদক একজন, উপ সমাজসেবা সম্পাদক চারজন, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক একজন, উপ ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক পাঁচজন, পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক একজন, উপ-পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক চারজন, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক একজন, উপ তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক চারজন, ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক একজন, উপ ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক তিনজন, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ১ জন, উপ ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ৫ জন, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ১ জন, উপ কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ৪ জন, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ১ জন, উপ গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ৪ জন, ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ১ জন, উপ ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক ৪ জন, সাহিত্য সম্পাদক ১ জন, উপ সাহিত্য সম্পাদক ৪ জন, গণযোগাযোগ ও উন্নয়ন সম্পাদক ১ জন, উপ গণযোগাযোগ ও উন্নয়ন সম্পাদক ৩ জন, মানবসম্পদ উন্নয়ন সম্পাদক ১ জন, উপ মানব সম্পদ উন্নয়ন সম্পাদক ৪ জন, আপ্যায়ন সম্পাদক ১ জন, উপ আপ্যায়ণ সম্পাদক ৪ জন, ছাত্রবৃত্তি সম্পাদক ১ জন, উপ ছাত্রবৃত্তি সম্পাদক ৩ জন, মুক্তিযুদ্ধ ও গবেষণা সম্পাদক ১ জন, উপ মুক্তিযুদ্ধ ও গবেষণা সম্পাদক ৪ জন, প্রশিক্ষণ সম্পাদক ১ জন, উপ প্রশিক্ষণ সম্পাদক ৪ জন, নাট্য ও বিতর্ক সম্পাদক ১ জন, উপ নাট্য ও বিতর্ক সম্পাদক ৪ জন, কর্মসংস্থান বিষয়ক সম্পাদক ১ জন, উপ কর্মসংস্থান বিষয়ক সম্পাদক ৫ জন, সহ সম্পাদক ৪৩ জন এবং ১৬ জন সদস্য রয়েছে।

পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা সম্পর্কে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হক জুয়েল বলেন, দীর্ঘ ০৪ বছর পর সরকারি তিতুমীর কলেজ শাখা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি হয়েছে। এ জন্য আমরা আনন্দিত। এতদিন পর ছাত্রলীগের ছেলেরা একটা পরিচয় পেয়েছে, এ জন্য সবাই খুশি। আমাদের কলেজ শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের মূল্যায়ন করে কমিটি অনুমোদন দেওয়ার জন্য বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সংগ্রামী সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ভাই ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য দাদার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি এবং নবগঠিত পূর্ণাঙ্গ কমিটির সকলকে মুজিবীয় শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি।

এর পূর্বে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ (সোহাগ-জাকির) ২০১৮ সালের ২৭ এপ্রিল মোঃ রিপন মিয়াকে সভাপতি ও মাহমুদুল হক জুয়েল মোড়লকে সাধারণ সম্পাদক করে সহ সভাপতি ১৫, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ৫ জনকে নিয়ে আংশিক কমিটি ঘোষণা করেছিলো।