চলমান করোনা মহামারিতে করোনা প্রতিরোধ ও সচেতনতার লক্ষ্যে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন ও পরিচালনা করছে। সেসব কর্মসূচি যেমন একই সাথে যুগোপযোগী আবার একই সাথে অনেকটাই চ্যালেঞ্জিং। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের এরকমই একটি মানবিক উদ্যোগ হচ্ছে ‘বিনামূল্যে এ্যাম্বুলেন্স সেবা’।

সম্প্রতি চালু হওয়া এই কর্মসূচির উদ্দেশ্য হচ্ছে ঢাকা মহানগরীর মধ্যে করোনা রোগীদের পরিবহণে বিনামূল্যে এ্যাম্বুলেন্স সেবা প্রদান। তবে সংগঠনটি চলমান লকডাউনের মধ্যে নন-কোভিড রোগীদেরকেও বিনামূল্যে সেবাটি প্রদান করছে। সেবাটি ইতোমধ্যে বিভিন্ন মহলের প্রশংসা কুড়িয়েছে।

এ বিষয়ে ‘বিনামূল্যে এ্যাম্বুলেন্স সেবা’ এর সমন্বয়কের দায়িত্ব পাওয়া ছাত্রলীগের ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ইমরান জমাদ্দার বলেন, ‘জাতির পিতার নিজ হাতে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শিক্ষা, শান্তি, প্রগতির পতাকা বুকে নিয়ে স্বদেশ গড়ার প্রত্যয়ে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের একমাত্র অভিভাবক, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা, আল-নাহিয়ান জয় ভাই এবং লেখক ভট্টাচার্য দাদাকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের দায়িত্ব দিলে সংগঠনে যে ইতিবাচকতা ও মানবিকতার চর্চা শুরু হয় ‘বিনামূল্যে এ্যাম্বুলেন্স সেবা’ এরই একটি অনন্য অসাধারণ দৃষ্টান্ত।

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা দিন রাত ২৪ ঘন্টা, সপ্তাহে সাতদিনই এই সেবা দিয়ে চলেছি। আমাদের কাছে যেসব রোগী বা রোগীর স্বজন যোগাযোগ করেছেন তাদের শতভাগকে আমরা এই সেবা প্রদানে সক্ষম হয়েছি। বিনামূল্যে এ্যাম্বুলেন্স সেবার জন্য হটলাইন নম্বর সংযোজিত করা আছে। ঢাকা মহানগরীতে কোভিড/নন-কোভিড যেকোন রোগীর জরুরী প্রয়োজনে বিনামূল্যে এ্যাম্বুলেন্স সেবা দিতে ছাত্রলীগ সবসময় প্রস্তুত।’

ছাত্রলীগের বিনামূল্যে এ্যাম্বুলেন্স সেবার জন্য প্রয়োজনীয় হটলাইন নাম্বার সমূহ হলঃ

ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
ইমরান জমাদ্দার – ০১৭৩৪-৯৭৩৯৮৮;

উপ-ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
ফেরদৌস শাহরিয়ার নিলয় – ০১৭৩৬-০৬৩৭৮১;
ফারুক আহম্মেদ – ০১৭২০-৬১০৫৬০;
সালেকুর রহমান শাকিল – ০১৭১৯-৪৬২৩৭৮;
মাজহারুল হক মাহফুজ – ০১৯২১-১০১৯২১।