৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে দুঃস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

বুধবার (১২ জানুয়ারি) বিকাল তিনটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বোপার্জিত স্বাধীনতা ভাস্কর্যের পাদদেশে শীতবস্ত্র ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করেন সংগঠনটির নেতাকর্মীরা।

ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলসমূহের নেতৃবৃন্দ ও কর্মীসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান।

ছাত্রলীগকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান বলেন, বিভিন্ন দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাহায্য-সহায়তা সর্বত্র প্রতীয়মান। এই সংগঠন প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে দেশের অসহায় দরিদ্রদের জন্য সবসময় সাহায্য করে আসছে। এমনকি যেকোনো আন্দোলন সংগ্রামে তাদের ভূমিকা অনন্য।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দি বলেন, ছাত্রলীগ আমাদেরকে শিখিয়েছে রাজনীতিতে প্রতিযোগিতামূলক প্রতিহিংসা থাকবে না। ভাষা আন্দোলন থেকে স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রতিটি আন্দোলনে সামনে ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। যার ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদশকে উন্নতির দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু এখনো রাজাকার-আলবদরমুখী কিছু কুচক্রী মহল তাদের সমালোচনা থামাচ্ছে না।

ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, আমরা বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া এই ছাত্র সংগঠনের কার্যক্রম তারই আদর্শে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সবসময় গরিব মেহনতি মানুষের পাশে সচেষ্ট। তারাই ধারাবাহিকতায় আজকে আমরা এই সংগঠনের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করছি। প্রতিবছর আমরা এই কার্যক্রম করে আসছি। ভবিষ্যতেও আমাদের এই কর্মকাণ্ড বিরাজ থাকবে।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ইমরান জমাদ্দার বিগত সময়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কৃষকের ধান কাটা,লকডাউনে বিনামূল্য এ্যাম্বুলেন্স সেবা,লকডাউনে শিক্ষার্থীদের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ,করোনায় মৃত ব্যক্তিদের লাশ দাফন কাফন,মাস্ক স্যানিটাইজার বিতরণ,বরিশালে কলেরা সংক্রমনকালে মেডিকেল টিম সহকারে আইভি স্যালাইন, ওরস্যালাইন বিতরণ সহ আরো বিভিন্ন কর্মসূচি তুলে ধরেন।