গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় দরিদ্র কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছে ছাত্রলীগ। করোনাভাইরাসের কারণে এ উপজেলায় চলতি বোরো মৌসুমে ধান কাটার শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে। এ অবস্থায় হতদরিদ্র ও বর্গাচাষীদের ধান কেটে দেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে ছাত্রলীগ।

এরই অংশ হিসেবে আজ বুধবার সকালে উপজেলা ছাত্রলীগের ৩০ সদস্যের একটি টিম আমতলী ইউনিয়নের চিত্রাপাড়া বিলে হাদিউজ্জামান নামে এক দরিদ্র কৃষকের ১ বিঘা জমির ধান কেটে দেয়।

এ সময় উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক ইকবাল হাসান, উপ-দপ্তর সম্পাদক শওকত হোসেন, আমতলী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাজিব, ছাত্রলীগ নেতা গোলাম রাব্বী, শেখ রোহান আরাফাত উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে এই মহামারির সময়ে বিনা পারিশ্রমিকে ধান কেটে দেওয়ায় খুশি দরিদ্র কৃষকসহ এলাকাবাসী।
কৃষক হাদিউজ্জামান বলেন, ‘জমিতে ধান পেকে গেছে। কয়েকদিন ধরে কাটার জন্য শ্রমিক খুঁজছিলাম। এ অবস্থায় ছাত্রলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম তার দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে আমার ক্ষেতের ধান কেটে দিলো। এই ধান কেটে দেওয়ায় আমার খুব উপকার হয়েছে। আমি উপজেলা ছাত্রলীগকে ধন্যবাদ জানাই।’

উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘বর্তমানে আমাদের এ উপজেলায় ধান কাটার জন্য শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছেনা। তাই আমরা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশক্রমে কোটালীপাড়া উপজেলা ছাত্রলীগ দরিদ্র কৃষকদের ধান কেটে দিচ্ছি।’