চাঁদপুরের কচুয়ায় চলমান লকডাউনের কারণে জমির পাকা ধান ঘরে তোলা নিয়ে শঙ্কায় পড়েছেন কৃষক। লকডাউনে শ্রমিক সংকট দেখা দেয়ায় অসহায় গরীব কৃষকদের পাশে দাুড়িয়েছে স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। তারা বিনামূল্যে দরিদ্র কৃষকদের মাঠের পাকা ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়েছেন। যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় দূরদূরান্ত থেকে ধান কাটা শ্রমিক আসতে পারছে না। ফলে উপজেলায় দেখা দিয়েছে ধান কাটা শ্রমিক সংকট। সেই সময় কৃষকের পাশে দাঁড়িয়েছে কচুয়া উপজেলা ছাত্রলীগ।

শনিবার (২৪ এপ্রিল) রাগদৈল এলাকায় শাহআলম নামের একজন কৃষকের ধান কাটা ও মাড়াইয়ের কাজ করে দিয়েছেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

জানা গেছে, কচুয়ার সাচার ইউনিয়নের রাগদৈল গ্রামের কৃষক শাহআলম হোসেনের চাষ করা বোরোধান পেকে ঘরে তোলার উপযোগী হয়েছে। কিন্তু লকডাউনের কারণে তিনি শ্রমিক না পাওয়ায় ফলে জমির পাকা ধান নিয়ে তিনি দুঃশ্চিন্তায় পড়েন। এমন সময় তাকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক সালাউদ্দিন সরকার।

শনিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত সালাউদ্দিন সরকারের নেতৃত্বে ১৫/২০জন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা কৃষক শাহআলমের ২৪ শতাংশ জমির পাকা বোরোধান জমি থেকে কেটে মাড়াই করে ঘরে তুলে দেন।

উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক সালাউদ্দিন সরকার বলেন, গত বছরও লকডাউনে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলতে সহযোগীতা করেছেন। এবারও ছাত্রলীগের এই সহযোগীতা অব্যাহত থাকবে।

এ সময় উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য কাইয়ুম চৌধুরী, সাচার ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ সরকার, সাচার ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মোশারফ ফরাজী, সাচার কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রিয়াজ আহম্মেদ, কড়ইয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. আলগীর হোসেন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শুক্কর আলম, বিতারা ইউনিয়ন নছাত্রলীগের যুগ্ন-আহ্বায়ক সজীব পাটওয়ারীসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডের ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।