মধ্যরাতে নগরীর দামপাড়া পল্টন রোড থেকে হঠাৎ ফোন আসে জরুরি ভিত্তিতে অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রয়োজন। সাথে সাথে মোটরবাইকে চেপে অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে ছুটে যান একদল ছাত্রলীগ কর্মী।

গত বছরের করোনার প্রকোপ যখন বেড়ে যায়, তখন চারিদিকে অক্সিজেনের জন্য কেবল হাহাকারই শোনা যাচ্ছিল। সে অবস্থা থেকে সাধারণ মানুষকে কিছুটা প্রশান্তি দিতে নগর ছাত্রলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য মোশরাফুল হক চৌধুরী পাভেল শুরু করেন ‘ফ্রি অক্সিজেন সার্ভিস’। করোনাকালীন এই এক বছরে ফ্রি অক্সিজেনের সেবা নিয়েছেন সাড়ে তিনশ মানুষ। এরমধ্যে কেবল গত দুই সপ্তাহে ফ্রি অক্সিজেন সেবা নিয়েছেন দেড় শতাধিক।

জানতে চাইলে মোশরাফুল হক চৌধুরী পাভেল দৈনিক আজাদীকে বলেন, ‘গত বছর অক্সিজেন সেবা দিয়ে আমি নিজে আক্রান্ত হই। তখন অক্সিজেনের প্রয়োজনীয়তা হাঁড়ে হাঁড়ে অনুভব করেছি। আমাদের টিমে ২০ জন ছাত্রলীগের সদস্য আছে। যত রাতই হোক না কেন, ২৪ ঘণ্টা নগরীর বিভিন্ন প্রান্তে অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে ছুটে যাই আমরা। মাননীয় শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরীর নির্দেশে আমরা এই ফ্রি সেবা দিয়ে যাচ্ছি। তিনি আমাদেরকে বারবার দেশ গড়ার কাজে নিয়োজিত থাকার কথা বলে যাচ্ছেন। আমাদের ফ্রি সার্ভিস নগর ছাড়িয়ে উপজেলা পর্যায়েও অনেকে নিচ্ছেন।’

তিনি আরো জানান, ‘ছাত্রলীগ দেশের সব ক্রান্তিকালে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছে। আমরাও সেই ধারাবাহিকতায় করোনাকালীন মানুষকে সেবা দিতে বদ্ধপরিকর। এক হ্যালোতেই মিলবে অক্সিজেন সিলিন্ডার। আমাদের হটলাইন নাম্বার হচ্ছে-০১৮৬১-২০২২৩০।’