* শিক্ষা * শান্তি * প্রগতি

* জয় বাংলা * জয় বঙ্গবন্ধু

প্রতিবন্ধীদের বাদ দিয়ে উন্নয়ন কল্পনা করা যায় না: ছাত্রলীগ সভাপতি

প্রতিবন্ধীদের বাদ দিয়ে উন্নয়ন কল্পনা করা যায় না: ছাত্রলীগ সভাপতি

‘প্রতিবন্ধী মানুষরা আসলে প্রতিবন্ধী নয়। তারা দেশের অংশ এবং দেশের সম্পদ। দেশকে এগিয়ে নিতে তাদের বাদ দিয়ে উন্নয়ন কল্পনা করা যায় না।’

আজ বুধবার বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলে প্রতিবন্ধীবান্ধব সংগঠন ‘প্রতিবন্ধী শিক্ষা ও পুনর্বাসন সংস্থা’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আইনুল ইসলাম, ঢাকা বিশ্বিবদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাহদী আল মুহতাসিম।

ছাত্রলীগ সভাপতি বলেন, আজকে যে সংগঠনটি যাত্রা করলো, দেশের প্রতিবন্ধীদের জন্য এটি একটি বড় প্ল্যাটফর্ম হিসেবে কাজ করবে। এ সময় তিনি সংগঠনটিকে এগিয়ে নিতে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

অনুষ্ঠানে সহযোগী অধ্যাপক আইনুল ইসলাম বলেন, আজকে যারা এ সংগঠন প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিয়েছেন, তারা অনেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। প্রতিবন্ধী হয়েও তারা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছে। সুতরাং তাদের দ্বারা সব কিছুই সম্ভব। আমি সংগঠনের সফলতা কামনা করি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ঢাকা বিশ্বিবদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাহদী আল মুহতাসিম বলেন, বাংলাদেশ সংবিধানে প্রতিবন্ধীদের সমান অধিকার দেয়া হয়েছে। এতে সমধিকার, মানবসত্ত্বার মর্যাদা ও সামাজিক সাম্য প্রতিষ্ঠার অঙ্গিকার ব্যক্ত করা হয়েছে। সুতরাং জাতীয় উন্নয়নসহ সকল কর্মকাণ্ডে তাদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে।

সভাপতির ভাষণে সংগঠনের উদ্যোক্তা সভাপতি আবুল হোসেন বলেন, প্রতিবন্ধী হয়েও হল সংসদ নির্বাচনে জয়ী হতে পেরেছি। সেখান থেকে আমি বুঝতে পারি সারা দেশের প্রতিবন্ধীদের নিয়ে কাজ করতে হবে। আমি দেশের পিছিয়ে পড়া প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীর জন্য কিছু করতে চাই। বাংলাদেশের ইতিহাসে একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে চাই।

আজকের অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ‘হাতে হাতে রেখে এগিয়ে যাই উন্নয়নের দিকে’ স্লোগানে শুরু হলো ‘প্রতিবন্ধী শিক্ষা ও পুনর্বাসন সংস্থা’র পথচলা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী ও হাজী মুহম্মদ মুহসীন হল ছাত্র সংসদের সমাজ সেবা সম্পাদক আবুল হোসেন সংগঠনটি প্রতিষ্ঠায় উদ্যোগ নিয়েছেন।